বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০ ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangladesh Total News

নিন্মোক্ত নিয়মে কালোজিরা খেলে করোনা থেকে আরোগ্য লাভ ও মুক্ত থাকা যাবে ইনশাআল্লাহ

প্রকাশের সময় : ১৩ এপ্রিল, ২০২০ ৫:২৩ : অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদন : করোনা নিয়ে আজ সমগ্র পৃথিবী নিঃশব্দ, আপন মানুষগুলো পর হয়ে গেছে। প্রিয় মানুষটি মারা গেলেও তাকে বিদায় জানাতে পারছেনা। বাংলা নববর্ষ শুরু হলেও কেউ তা উদ্যাপন করতে পারছে না। চেনা পৃথিবী হয়ে গেলো অচেনা। সমগ্র পৃথিবীবাসী এক কঠিন অবস্থায় জীবন পার করছে। স্মরণকালের মধ্যে ২য় বিশ্বযুদ্ধের পর পৃথিবীর এরকম সঙ্গীন অবস্থা আর হয়নি। বিশেষত: বাংলাদেশের মতো জনবহুল দেশে তো করোনা মহামারীর আকার নিলে যে কী অবস্থা হবে তা অকল্পনীয়।
আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম আরো চৌদ্দশত বছর আগেই বলেছিলেন যে, কালোজিরা হচ্ছে মৃত্যু ব্যতীত সকল রোগের মহৌষধ। পৃথিবীর এই দুর্যোগ মুহূর্তে হাদীসের এই বাণী নিয়ে বাংলাদেশ টোটাল নিউজ টুয়েন্টি ফোর ডট কম ডট বিডি বা Btnews24.com.bd এর বার্তা সম্পাদক  বিশেষ গবেষণা চালান। তিনি এই বিষয়ে তার ঘনিষ্ট বিজ্ঞ  একজন লোকের সহায়তা নেন। ইতিমধ্যে নাইজেরিয়ার প্রাদেশিক গভর্ণর সেয়ী মাকিন্দে জানিয়েছেন যে, তিনি শুধুমাত্র সকাল সন্ধ্যা মধু ও কালোজিরা খেয়ে করোনা রোগ থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন। তিনি একান্ত নিজ ইচ্ছাতেই এমনটি করেছিলেন। কিন্তু আমরা গবেষণা করে সুনির্দিষ্ট এই পদ্ধতিতে বের করেছি।
নিম্নোক্ত পদ্ধতিতে কালোজিরা সেবন করলে করোনা রোগ থেকে আরোগ্য লাভ ও মুক্ত থাকা যাবে। বাংলাদেশে যেহেতু কালোজিরা সচরাচর পাওয়া যায়, তাই বাংলাদেশীরা সহজেই সুস্থ থাকতে পারবেন।
যদি আপনি মুসলিম হন সেক্ষেত্রে পাক পবিত্রভাবে ১০০ বার দরুদ শরীফ, ১০০০ বার সূরা ফাতেহা ও ১০০ বার আবার দরুদ শরীফ পড়বেন। যিনি রোগী বা তার ঘনিষ্ট আত্মীয় তিন মুঠো কালোজিরা নিবেন। পরিষ্কার পানিতে ধুয়ে রোদে বা ফ্যানের নিচে বাতাসে রেখে শুকিয়ে নিন। তারপর শুকনো কালোজিরারয় উপরের আমলটি করে ৩ বার ফুঁক দিবেন। আমলটি নিজে করতে না পারলে একজন ভালো হুজুর বা মাদ্রাসার ছাত্রকে দিয়ে করিয়ে ফুঁক দিয়ে নিবেন। যদি রোগী হন সেক্ষেত্রে প্রতিদিন ৩ বেলা করে ৭ দিনে এই কালোজিরা গুলো খাবেন। যদি চিবিয়ে খেতে না পারেন তবে পিষে গুড়ো করে খেতে পারবেন। সকালে ও দুপুরে গরম পানি দিয়ে ও রাতে গরম দুধ দিয়ে খাবেন। খাওয়ার আগে বা পরে খেতে পারবেন।
আশা রাখি ইনশাআল্লাহ আল্লাহর রহমতে সুস্থ হয়ে যাবেন। যারা করোনা রোগী নন তারা কম পরিমাণ দিয়ে ১৫ দিন পর্যন্ত উপরের নিয়মে খেতে পারবেন। যারা আইসোলেশনে আছেন এবং ডাক্তার, পুলিশ ও সেনাবাহিনীর সদস্য, র‌্যাব, নার্স ও মেডিকেল অ্যাসিসটেন্সসহ যারা সরাসরি করোনা রোগীর সেবা করছেন তারাও উল্লেখিত নিয়মানুযায়ী সেবন করুন, সবাই সুরক্ষিত হবেন।
আল্লাহর উপর বিশ্বাস রাখুন অবশ্যই আল্লাহ সুস্থ রাখবেন আরা যারা অমুসলিম তারা কোন ভাল মুসলিমের এর কাছ হতে দোয়া পড়িয়ে নিয়ে খেতে পারেন অথবা নিজে নিজেই দুই বেলা গরম পানি ও রাতে দুধ দিয়ে উল্লেখিত নিয়ম মোতাবেক কালোজিরা খেয়ে নিবেন, ইনশাআল্লাহ সুস্থ থাকবেন। সবাই স্ব স্ব ধর্ম বিশ্বাস অনুযায়ী সকল প্রকার অন্যায় কাজ থেকে নিজেকে বিরত রাখবেন।

যারা সুস্থ আছেন তারা নিয়ম মোতাবেক মাস্ক পরিধান ও অন্যান্য সরকারী নির্দেশনা অবশ্যই মেনে চলবেন।

যেকোন তথ্যের জন্য মেইল করুন Btnews24h@gmail.com

 


ট্যাগ :

আরো সংবাদ