বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০ ২৫শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Bangladesh Total News

আমার চাওয়া-পাওয়ার কিছু নেই, শুধু জনগণের সেবা করতে চাই : আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল

প্রকাশের সময় : ১৭ মার্চ, ২০২০ ১০:৪৬ : অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদন : চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনকে ঘিরে সাধারণ জনতার মধ্যে উৎসব ও আমেজের একটি পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে বলে মনে করেন চট্টলাবাসী। নির্বাচন প্রচারণার সময়কালে, গণসংযোগ ও নির্বাচন কমিশন কর্তৃক বেধে দেওয়া নির্দ্দিষ্ট সময়ে মাইকিং ও উঠোন বৈঠক নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন নিজ নিজ এলাকার কাউন্সিলর পদপ্রার্থীগণ। বিটিনিউজের বিশেষ প্রতিনিধি ও আইটি কর্মকর্তাকে সাথে নিয়ে নির্বাচন পরিক্রমার অংশ হিসাবে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ১১নং দক্ষিণ কাট্টলী ওয়ার্ডের বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত কাউন্সিলর পদপ্রার্থী আলহাজ্ব অধ্যাপক মোহাম্মদ ইসমাইল এর সাথে নির্বাচনী পরিবেশ নিয়ে মুক্ত আলোচনা হয়। আলোচনা, পর্যালোচনা ও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উপাত্ত প্রাসঙ্গিকতায় স্থান পায়। আগামীর ২৯ শে মার্চে নির্বাচনে টিফিন ক্যারিয়ার প্রতীকে জয়ের আশাবাদ ব্যক্ত করে আলোচনার সারাংশ প্রকাশ করা হচ্ছে।
১. বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি : কখন থেকে আপনি রাজনীতি করছেন ?
আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল : আমি ১৯৮০ সাল থেকে রাজনীতিতে জড়িত। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণীত হয়ে আমি ঐ সময় হতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগে যোগদান করি। পরবর্তীতে যুবলীগে যোগদান করি। ১৯৯৬ সালে মহানগর যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য ছিলাম, পরবর্তীতে ২০০৪ সালের কমিটিতেও ছিলাম। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৪ সালে আমি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে যোগদান করি এবং পরর্তীতে দক্ষিণ কাট্টলী ওয়ার্ডের সভাপতির দায়িত্ব লাভ করি।
২. বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি : কেন জনপ্রতিনিধি হতে চান ?
আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল : রাজনৈতিক কর্মী হিসাবে মানবসেবা করার উদ্দেশ্যেই জনপ্রতিনিধি মনোনীত হতে চাই। মানবসেবা করা হচ্ছে আমার অন্তরের ইচ্ছা বা হবি। এ পর্যন্ত আমার ও আমার পরিচিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে এলাকার প্রায় ৭৫০ জনকে চাকরি দিয়েছি এবং ভবিষ্যতে আরো দিবো। মানবসেবা করার জন্য কাউন্সিলর হতে চাই।
৩. বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি : কাউন্সিলর নির্বাচিত হলে আপনি প্রাধান্যতার ভিত্তিতে কোন কোন কাজ করবেন ?
আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল : মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার ঘোষণা মোতাবেক সন্ত্রাসী, ইয়াবা ব্যবসায়ী, চাঁদাবাজ, জুয়াড়ীদের প্রতিরোধ ও জলাবদ্ধতা নিরসনে আমি সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে কাজ করবো। এই ওয়ার্ডে আমি একটি ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল গড়ে তুলতে চাই।
৪. বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি : বিগত কাউন্সিলর এর কর্মকান্ডকে কিভাবে মূল্যায়ন করবেন ?
আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল : বিগত কাউন্সিলর এর আমলে এলাকার তাঁর উদ্যোগে খুব একটা উন্নয়ন কাজ হয়নি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় এখানে যা কিছু উন্নয়ন কাজ হয়েছে।
৫. বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি : নির্বাচিত হলে এলাকার যুবসমাজের জন্য আপনি কি করবেন ?
আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল : যুবসমাজের প্রধান সমস্যা হলো বেকারত্ব। নির্বাচিত হলে কমপক্ষে ১০০০ বেকার যুবককে আমার পরিচিত বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানে চাকরির ব্যবস্থা করে দিবো। বেকার যুবকদেরকে কর্মসংস্থান করলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অপরাধ কমবে।
৬. বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি : নারী সমাজের জন্য আপনি কি করবেন ?
আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল : নারী সমাজের জন্যও আমি নানাবিধ হাতের কাজের প্রশিক্ষণ তথা টেকনিক্যাল ইনষ্টিটিউট প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করবো।
৭. বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি : পরিবেশ দূষণ রোধে আপনি কি করবেন ?
আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল : অপরিকল্পিতভাবে যে শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে অর্থাৎ বর্জ্য পরিশোধনের ব্যবস্থাবিহীন কারখানাগুলোর পরিশোধন ব্যবস্থা কার্যকরের উদ্যেগ নিবো। সরাইপাড়ার লৌহজাত দ্রব্যাদির কারখানাগুলোতে ব্যাপকভাবে পরিবেশ দূষণ হ্রাসে ব্যবস্থা নিবো। এছাড়াও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কাজ নিয়মিত তদারকী করবো।
৮. বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি : নির্বাচিত হলে সামাজিক সুশাসন প্রতিষ্ঠায় কি কি পদক্ষেপ নেবেন ?
আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল : নিবাচিত হলে আমি কাউন্সিলর কার্যালয়কে দুর্নীতিমুক্ত করবো। আমার চাওয়া পাওয়ার কিছুই নেই। শুকরিয়া আল্লাহর দরবারে তিনি আমাকে অনেক দিয়েছেন। আমি চাই শুধু এবার জনগণের সেবা করতে। কাউন্সিলর কার্যালয়ে কোন সনদপত্র নিতে আসলে ইনশাআল্লাহ ২৪ ঘন্টার মধ্যে সনদপত্র বাড়িতে পৌছে দিবো। আমার টাকায় সিভিল ল’ইয়ার নিয়োগ দিয়ে দ্রুততম সময়ে ওয়ারিশ সনদপত্র দেয়ার ব্যবস্থা করবো। অর্থাৎ কাউন্সিলর কার্যালয়ের সকল সেবা দ্রুততম সময়ে ও দুর্নীতিমুক্তভাবে আমি প্রদান করবো।
৯. বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি : ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে আনয়নের জন্য কি কি কাজ করছেন ?
আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল : আমি ডোর টু ডোর গিয়ে ভোট চাইছি এবং সাধারণ জনগণকে নির্ভয়ে ভোটকেন্দ্রে আসার জন্য উদাত্ত আহবান জানাচ্ছি। আমাকে ও মেয়র প্রার্থীকে যদি ভোটররা যোগ্য মনে করেন তাহলে যেন তাদের ভোটটি আমাদেরকে দেন।
১০. বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি : ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটপ্রদানকে কিভাবে মূল্যায়ন করছেন ?
আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল : মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার একটি স্তর হচ্ছে এই ইভিএম। এবারের নির্বাচনে আমি ইভিএম এ ভোটকে পরিপূর্ণ সমর্থন করি।
১১. বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি : আগামীতে আপনার ওয়ার্ডকে কিভাবে দেখতে চান ?
আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল : আমি আমার ওয়ার্ডকে সম্পূর্ণরূপে মালয়েশিয়া বা সিঙ্গাপুরের মতো পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন হিসাবে গড়ে তুলতে চাই।
১২. বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি : আমাদের মাধ্যমে এলাকাবাসীকে আপনি কি বার্তা দিতে চান ?
আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল : মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমার মতো একটি নগন্য কর্মীকে মনোনয়ন প্রদান করে আমার প্রতি যে আস্থা রেখেছেন এজন্য আমি উনার কাছে আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে জনাব রেজাউল করিম চৌধুরীকে মেয়র পদে নৌকা মার্কায় ও কাউন্সিলর পদে আমাকে টিফিন ক্যারিয়ার মার্কায় ভোট প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।
ধন্যবাদ বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি কে।


ট্যাগ :

আরো সংবাদ