বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০ ২৫শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Bangladesh Total News

সঠিক পদক্ষেপ নিলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশের সময় : ২৩ মার্চ, ২০২০ ৬:২০ : অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদন : মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অবশেষে করোনা নিয়ন্ত্রণে সঠিক পদক্ষেপ নিয়েছেন। করোনার প্রকোপ দমনে হোম কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক ঘোষণা করা এখন সময়ের দাবী। আগামী ১০ দিন যদি আমরা নিজেদেরকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারি ও নিজ নিজ ঘরে অবস্থান করতে পারি, তাহলে আশা করা যায় ধ্বংসাত্মক এ রোগের প্রাদুর্ভাব কিছুটা হ্রাস পাবে। এই মুহুর্তে দরকার চিকিৎসা সংশ্লিষ্ট ব্যাক্তিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক রাস্তাঘাটে ব্লিচিং পাউডার মিশ্রিত পানি ছিটিয়ে রাস্তাঘাট জীবাণুমুক্ত রাখা।

হতদরিদ্র মানুষকে সেনাবাহিনীর সহায়তায় খাবার প্রদানের ব্যবস্থা করতে হবে। এক্ষেত্রে প্রয়োজনে উদ্যমী স্বেচ্ছাসেবী তরুণদের ব্যবহার করতে হবে। যদি খোদা না করুক ঢাকাসহ সারাদেশে বাস্তুচ্যুত লোকেরা করোনায় আক্রান্ত হয় এবং মারা গিয়ে রাস্তায় পড়ে থাকে তাহলে ভয়াবহ অবস্থা হবে ঘনবসতিপূর্ণ এই দেশে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবরে আমরা আরেকটা অনুরোধ করছি যে, রিহ্যাব এর সাথে আলাপ করে নির্মানাধীন ভবনগুলোকে কোয়ারেন্টাইনে সেন্টার করা যায় কিনা তা দেখা উচিত। কেননা, বস্তিবাসীরা এক রুমে একাধিক লোক থাকেন তাই তারা আক্রান্ত হলে কোয়ারেন্টাইন কোথায় করবেন? দেশ ও জাতিকে প্রাণে বাঁচানোই এখন বড় চ্যালেঞ্জ। সাথে সাথে আগামীতে খাদ্য উৎপাদন ও সাপ্লাই চেইনও নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। বিসিএসআইআরকে স্বল্পমূল্যে হ্যান্ডওয়াশ তৈরীর দায়িত্ব দেয়া উচিত। দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে।

এই মুহূর্তে প্রধান কাজ হচ্ছে, চিকিৎসাপ্রার্থীদেরকে সঠিক চিকিৎসাসেবা প্রদান করা, গুজব ও আতংক রটনাকারীদেরকে কঠোরভাবে দমন করা। অন্ততপক্ষে দেশের বিভাগীয় শহরগুলোতে করোনা ভাইরাস টেস্টের ব্যবস্থা চালু করা। যারা সাধারণ জ্বর সর্দি ও কাশিতে ভুগছেন তাদের জন্য জেলা পর্যায়ে হট লাইন স্থাপনের মাধ্যমে টেলিমেডিসিন সেবার ব্যবস্থা করা।সিটি কর্পোরেশনের ডোর-টু-ডোর পরিচ্ছনতা কর্মীদের জন্য প্রোটেকটিভ পোষাকের ব্যবস্থা করা। স্থানীয় শিল্পপতি ও সমাজদরদী ব্যাক্তি ও যুবকদের মাধ্যমে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সহায়তায় দরিদ্র লোকদের খাওয়ানো অথবা আর্থিক সহায়তা করা। আগামীতে ২৬ মার্চ হতে ৪ঠা এপ্রিল সরকারী বেসরকারী সব প্রতিষ্ঠান বন্ধের মাধ্যমে করোনার ‍বিস্তার রোধে আমরা যদি স্ব স্ব অবস্থান হতে আমাদের দায়িত্ব ঠিকভাবে পালন করি তাহলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অধীনে করোনা নিয়ন্ত্রনে এনে আমরা বিশ্বকে তাক লাগাতে পারবো।মহান রাব্বুল আলামীন আমাদের মতো অসহায় জাতিকে রক্ষা করুন ও দেশবাসীকে হেফাজত করুন, এটাই প্রার্থনা করি।

 


ট্যাগ :

আরো সংবাদ