রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০ ৯ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangladesh Total News

সবজির বাজার চড়া

প্রকাশের সময় : ১৭ অক্টোবর, ২০২০ ২:৩২ : পূর্বাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট : গত তিন মাস ধরে সবজির বাজার চড়া। যেসব সবজি আগে প্রতি কেজি ৫০ থেকে ৭০ টাকার মধ্যে ছিল, সেটা এখন ৬০ থেকে ১০০ টাকার ঘরে। সবজির এমন চড়া বাজারে নতুন করে দাম বেড়েছে ডিম ও কাঁচামরিচের। আর হঠাৎ করে বেড়ে যাওয়া আলুর দাম নির্ধারণ করা হলেও এখনও ৫০ টাকা কেজিতেই বিক্রি হচ্ছে। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর বাজারগুলোয় অভিযান চালানোর পরও এক কেজি পিয়াজ কিনতে হচ্ছে ১০০ টাকায়। একইভাবে আলুর দাম নির্ধারণ করলেও তা কিনতে হচ্ছে ৫০-৬০ টাকায়। খাদ্য মন্ত্রণালয় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করে সরু ও মাঝারি চালের দাম নির্ধারণ করে দিলেও খুচরা বাজারে চালের দাম কমেনি।এখনও প্রতি কেজি ভালো মানের মোটা চাল ৪৮-৫০ টাকা, মাঝারি চাল ৫২-৫৪ টাকা এবং সরু চাল ৫৮-৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।ব্যবসায়ীরা জানান, সবজির দাম কমতে আরো মাস খানেক সময় লাগবে। বন্যার পানি নেমে যাওয়ার পর কৃষকেরা নতুন সবজি আবাদ শুরু করেছেন। ওই সবজি এলেই কেবল দাম কমতে পারে। সবজির মতো চাল, পিয়াজ ও আলুর দাম নির্ভর করছে নতুন মৌসুম ও সরবরাহ পরিস্থিতির ওপর। আর ভোজ্যতেলের দাম কমতে পারে কেবল বিশ্ববাজারে দর পড়তে শুরু করলে। ফলে শিগগিরই মানুষের দুর্ভোগ কমছে না।বাজারে শীতের আগাম সবজি কিছু কিছু উঠতে শুরু করেছে। তবে দাম অস্বাভাবিক বেশি। ব্যবসায়ীরা শিমের কেজি ১৬০ টাকা চাচ্ছেন। একেবারেই ছোট আকারের একেকটি ফুলকপি ও বাঁধাকপি চাওয়া হচ্ছে ৪০ টাকা, যার ৩টি কিনলে এক বেলার এক পদ তরকারি রান্না করা সম্ভব।
এদিকে, ইলিশ ধরা বন্ধ হওয়ার পর বাজারে মাছের দাম কিছুটা বেড়েছে। বাজারে চাষের কই ১৮০ থেকে ২০০ টাকা, পাঙ্গাশ ১৫০ টাকা ও তেলাপিয়া ১৬০-১৭০ টাকা কেজিতে বিক্রি করতে দেখা যায়। দুই কেজি আকারের রুই মাছের কেজি চাওয়া হয় ৩৫০ টাকা। চিংড়ি, বেলে, বোয়াল, চিতল, আইড়, বাইন ইত্যাদি মাছের প্রতি কেজি ৫০০ থেকে ৮০০ টাকা। মাছ বিক্রেতা আলম বলেন, ইলিশ ধরা বন্ধের পর বিভিন্ন ধরনের মাছের দাম কেজিপ্রতি ১০ থেকে ৩০ টাকা বেড়েছে।
বাজারে ১১০ থেকে ১১৫ টাকা ডজন বিক্রি হওয়া ডিমের দাম বেড়ে ১১৫ থেকে ১২০ টাকা হয়েছে। আর ৪০ থেকে ৫০ টাকা পোয়া (২৫০) বিক্রি হওয়া কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৮০ টাকা। অর্থাৎ কেজিতে কাঁচামরিচের দাম ১২০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে।
এদিকে শিম, পাকা টমেটো, গাজর, বেগুন ও বরবটির সঙ্গে নতুন করে ১০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে উস্তা, যা গত সপ্তাহে ছিল ৬০ থেকে ৭০ টাকার মধ্যে। এর মধ্যে পাকা টমেটো গত কয়েক মাসের মতো এখনো ১২০ থেকে ১৪০ টাকা এবং গাজর ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। গত সপ্তাহের মতো শিমের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১২০ থেকে ১৪০ টাকা। বরবটির কেজি গত সপ্তাহের মতো বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১২০ টাকা। বেগুনও গত সপ্তাহের মতো ৮০ থেকে ১১০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।
শুধু এই ৬ সবজি নয়, বাজারে অন্য সবজিগুলোও স্বস্তি দিচ্ছে না। পটলের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৭০ টাকা। লাউয়ের পিস বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকা। এক হালি কাঁচকলা বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা। ঝিঙা, কাঁকরোল, ধুন্দুলের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৭০ টাকা। ৫০ টাকার নিচে পাওয়া যাচ্ছে মুলা ও পেঁপে। এর মধ্যে মুলার কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা। পেঁপের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৫০ টাকা।


ট্যাগ :

আরো সংবাদ