রোববার, ৫ জুলাই ২০২০ ২১শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangladesh Total News

দক্ষিণ কাট্টলীতে ১৪০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ করেছি: মোরশেদ আকতার চৌধুরী

প্রকাশের সময় : ১৮ মার্চ, ২০২০ ২:১৪ : অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিগত ৫ বছর যাবত ১১ নং দক্ষিণ কাট্টলী ওয়ার্ডের কমিশনার হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন জনাব মোরশেদ আকতার চৌধুরী। নির্বাচন প্রচারনার সময়কালে, গণসংযোগ ও নির্বাচন কমিশন কর্তৃক বেধে দেওয়া নির্দ্দিষ্ট সময়ে মাইকিং ও উঠোন বৈঠক নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন নিজ নিজ এলাকার কাউন্সিলর পদপ্রার্থীগণ। বিটিনিউজের বিশেষ প্রতিনিধি ও আইটি কর্মকর্তাকে সাথে নিয়ে নির্বাচন পরিক্রমার অংশ হিসাবে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ১১নং দক্ষিণ কাট্টলী ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর মোরশেদ আকতার চৌধুরীর সাথে নির্বাচনী পরিবেশ নিয়ে মুক্ত আলোচনা হয়। আগামীর ২৯ শে মার্চে নির্বাচনে ঘড়ি প্রতীকে জয়ের আশাবাদ ব্যক্ত করে তার আলোচনার সারাংশ নিচে দেয়া হলো।
বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি: গত ৫ বছরে আপনি কাউন্সিলর হিসাবে কাজ করেছেন, আপনি নিজেকে কতটুকু সফল মনে করছেন?
জনাব মোরশেদ আকতার চৌধুরী: ২০১০ সালে ১৭ই জুন অনুষ্ঠিত নির্বাচন আমার এলাকায় লোকজন আমাকে সর্বোচ্চ ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছিলেন। এরপর, ২০১৫ সালের ২৮শে এপ্রিল আবার পুনরায় নির্বাচিত হয়েছি। অত্র এলাকায় লোকজন আমার উপর যে আস্থা ও বিশ্বাস রেখেছে তার প্রতিদানে আমি বিগত সময়ে আমার ওয়ার্ড দক্ষিণ কাট্টলীতে ১৪০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ করেছি। আমার অসমাপ্ত কাজগুলোকে সমাপ্ত করার লক্ষ্যে পুনরায় আবার প্রার্থী হয়েছি। দুই টার্মে আমি যেই উন্নয়ন কাজ করেছি তার প্রতিফলন হবে আগামী ২৯শে মার্চ এর নির্বাচনে।
বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি: আগামীতে এলাকার উন্নয়নের জন্য আপনার কি কি পরিকল্পনা রয়েছে?
জনাব মোরশেদ আকতার চৌধুরী: আমরা যেহেতু জনগণের কল্যাণের জন্য রাজনীতি করি, সেহেতু আমাদের সকল কর্মকা-ই জনসেবার জন্য। শিক্ষা ব্যবস্থা সুসংগঠিত করবে, মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত এলাকা গড়ে তুলবো, অবকাঠামো উন্নয়ন, পরিবেশকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।
বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি: ভোটারদেরকে ভোটকেন্দ্রে আনয়নের জন্য কি কি ব্যবস্থা নিয়েছেন? ইভিএমএ ভোটগ্রহণকে কিভাবে দেখছেন?
জনাব মোরশেদ আকতার চৌধুরী: আমি জনগণের জন্য কাজ করেছি, তাই আশা করছি স্বতস্ফূর্তভাবে জনগণ ভোটকেন্দ্রে এসে আমাকে ভোট দান করবে। কোন অশুভ শক্তি তাদেরকে ভোট দানে বিরত রাখার চেষ্টা করে তাহলে সচেতন জনগণ তাদের প্রতিহত করবে। আমি ইভিএমকে স্বাগত জানাচ্ছি। এটি একটি সুন্দর পদ্ধতি। এখানে আপনার যাকে খুশি আপনি তাকে ভোট দিতে পারবেন।
বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি: দু’বার নির্বাচিত হয়ে নারী নির্যাতন ও শিশু শ্রম প্রতিরোধের কি কি কাজ করেছেন?
জনাব মোরশেদ আকতার চৌধুরী: শিশু ও নারীদের জন্য এনজিওদেরকে সাথে নিয়ে বিভিন্ন সেমিনার করেছি। নারী নির্যাতন ও শিশুশ্রম প্রতিরোধে আমি কার্যকর ব্যবস্থা নিয়েছি বলে আমি মনে করি।
বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি: নারীর ক্ষমতায়নের জন্য আপনি কি কি কাজ করেছেন?
জনাব মোরশেদ আকতার চৌধুরী: নারীদেরকে বিভিন্ন সামাজিক কর্মকা-ে সংযুক্ত করেছি। নারীদের সমাজের অর্ধেক, তাই নারীদেরকে সম্পৃক্ত করা ছাড়া কোন উন্নয়ন কাজ সম্পূর্ণ হবে না।
বিটিনিউজ২৪.কম.বিডি: আপনার এলাকায় সমস্যাগুলো সমাধানে আপনি কি কি ব্যবস্থা নিবেন?
জনাব মোরশেদ আকতার চৌধুরী: বিগত সময়ে আমার এলাকায় যে যে সমস্যা আছে আমি সেগুলি ইতিমধ্যে চিহ্নিত করেছি। মূলত জলাবদ্ধতা হলো এখানকার এখনো অমীমাংসিত সমস্যা। কারা ড্রেনেজ ব্যবস্থাকে দখল করে রেখেছেন তা আমার জানা আছে। আমি ড্রেনেজ ব্যবস্থার সকল বাধা অপসারণ করবো।


ট্যাগ :

আরো সংবাদ