শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০ ৭ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangladesh Total News

চসিক প্রশাসকের সাথে বদরশাহ পুকুর অংশীদারদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশের সময় : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ৯:১৫ : অপরাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট : অংশীদারদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিতচট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক আলহাজ্ব মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন বলেছেন, বদরশাহ পুকুর একটি ঐতিহাসিক পুকুর। বদর আওলিয়ার স্মৃতিকে ধরে রাখার জন্য এর সংস্কার ও সৌন্দর্যবর্ধন করা হচ্ছে। আগামী প্রজন্ম যেন এর ইতিহাস ও জৌলুস সম্পর্কে জানতে পারে, এজন্যই চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের এই প্রয়াস। এই ঐতিহাসিক পুকুরের পার্শ্ববর্তী চলাচল পথ ও বিদ্যমান সমস্যার কথা উল্লেখ করে প্রশাসক বলেন, মামলা হলো একটি দীর্ঘ মেয়াদী ব্যাপার। এতে দীর্ঘ সময়ক্ষেপণ হয়ে থাকে। আন্তরিক আলাপ-আলাচনার মাধ্যমে সব সমস্যার সমাধান সম্ভব বলে আমি মনে করি। আজ বিকেলে আন্দরকিল্লাস্থ চসিক পুরাতন নগরভবনের কে বি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে বদরশাহ পুকুরের অংশীদারদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রশাসক এসব কথা বলেন। প্রশাসক আরো বলেন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সৌন্দর্যবর্ধন কাজের মধ্য দিয়ে এলাকাবাসী ও মাজারে আগত ভক্তবৃন্দ এর সুফল ভোগ করবে। বদরশাহ পুকুরের উন্নয়ন হলে উভয় পাড়ের জনগণ এবং মসজিদে আগত মুসল্লীরা নামাজ শেষে ওয়াকওয়ে ব্যবহার করতে পারবে। প্রশাসক বিরোধকৃত চলাচল পথের অংশিদারদের সাথে আলাপ আলোচনা শেষে আগামী কয়েক দিনের মধ্যে পুনরায় বৈঠকের মাধ্যমে এর আশু সমাধান আসবে বলে মত প্রকাশ করেন। বৈঠকে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মুফিদুল আলম, প্রশাসকের একান্ত সচিব মোহাম্মদ আবুল হাশেম, নির্বাহী প্রকৌশলী ফরহাদুল আলম, এস্টেট অফিসার মো. কামরুল ইসলাম চৌধুরী, এলাকাবাসীর পক্ষে মো. হারুনুজ্জামান, দিদারুল আজিম খান, মহিউদ্দিন শাহ, আবুল হাসেম, হাবিবুল্লাহ, নুরুল হুদা, আহমুদুর রহমান বাবুল, আকতার আজিম খান, আবদুল কাইয়ুম সুমন, জসিম উদ্দিন, জানে আলম, সৈয়দ আবুল বশর ও মোজাম্মেল হক মানিকসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য যে, চট্টগ্রাম নগরীর বদরপাতিস্থ বদর পুকুরটি কিছু দিন আগে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন প্রায় ২ কোটি ৭০ লাখ টাকা ব্যয় করে পুকুরটির সংস্কার কাজ শুরু করে। সংস্কার করার পরবর্তী মানুষের হাঁটার জন্য পুকুরের চারদিকে করা হচ্ছে ওয়াকওয়ে ও আলোকায়ন ব্যবস্থা করা হবে।


ট্যাগ :

আরো সংবাদ