সোমবার, ১ মার্চ ২০২১ ১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangladesh Total News

সেনাবাহিনীতে চাকরী দেয়ার নামে প্রতারণা

প্রকাশের সময় : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ৮:১৯ : অপরাহ্ণ

এম এ কবীর, ঝিনাইদহ ঃসেনাবাহিনীতে চাকরী দেয়ার নামে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে ঝিনাইদহের একটি প্রতারক চক্র। চক্রটি শৈলকুপা, মাগুরার শ্রীপুর, কুষ্টিয়ার খোকসা ও রাজবাড়ির পাংশা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের বেকার যুবকদের কাছ থেকে নগদ টাকা আবার কখনো ব্যাংকের চেক কিংবা ষ্ট্যাম্পে সই নিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছে মোটা অংকের টাকা।শৈলকুপা উপজেলার চর বাখরবা গ্রামের শরিফুল ইসলাম অভিযোগ করেন, তার ছেলে বাধনকে সেনাবাহিনীতে চাকরী দেয়ার নাম করে ৮ মাস আগে উপজেলার গোয়ালবাড়িয়া গ্রামের সুরুজ আলির ছেলে গিয়াস উদ্দিন (তারা) স্ট্যাম্প ও চেক নিয়ে তার সহযোগী শৈলকুপা উপজেলার চর ডাউটিয়া গ্রামের সিরাজ জোয়ার্দারের ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেনের কাছে দেয়। এছাড়াও এই চক্রের সাথে জাহাঙ্গীরের স্ত্রী রাশিদা বেগম,একই গ্রামের মজিবর মুন্সির ছেলে আসান, তার স্ত্রী কনা খাতুন এবং শ্রীপুর উপজেলার খড়িবাড়িয়া গ্রামের বারিক শেখের ছেলে আক্তার শেখ জড়িত বলে জানা গেছে। চাকরী দিতে না পারলে চেক ও স্ট্যাম্প ফেরত চাইলে প্রতারক চক্রটি ব্লাঙ্ক চেক ও স্ট্যাম্প ইচ্ছেমতো লিখে উল্টো মামলা করার হুমকী দিচ্ছে।এই চক্রের সদস্য গিয়াস উদ্দিন (তারা) বলেন, আমি চেক ও স্ট্যাম্প শরিফুলের কাছ থেকে নিয়ে জাহাঙ্গীরের কাছে দিই। এখন জাহাঙ্গীর ও তার স্ত্রী চেক ও স্ট্যাম্প ফেরত দিচ্ছে না। এ ব্যাপারে জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আমার গ্রামের আসান ও গোয়ালবাড়ি গ্রামের গিয়াসউদ্দিন তারা ও রাশিদা বেগমের সাথে চক্রান্ত করে এই কাজ করেছে।ঘটনার সাথে জড়িত গিয়াস উদ্দিন সহ ৪/৫ জন। আমার কাছে কোন স্ট্যাম্প বা চেক নেই। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি বলেন গোয়ালবাড়িয়ার গিয়াস উদ্দিন, চর ডাউটিয়ার জাহাঙ্গীর হোসেন ও তার স্ত্রী সেনাবাহিনীতে চাকরী দিতে এক সিন্ডিকেট গড়ে তুলেছে। এই সিন্ডিকেটের পাল্লায় পড়ে গ্রামের অনেক পরিবার নিঃস্ব হয়ে যাচ্ছে।
এ ব্যপারে শৈলকুপা থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম জানান, এমন কোন অভিযোগ আমার কাছে আসেনি। অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেব।


ট্যাগ :

আরো সংবাদ