মঙ্গলবার, ২ মার্চ ২০২১ ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangladesh Total News

রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক নির্মাণের ঠিকাদারী নিয়ে যারা প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে না তাদের ক্ষমা নেই:সুজন

প্রকাশের সময় : ২৪ জানুয়ারি, ২০২১ ৩:০৯ : পূর্বাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট:চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন বলেছেন, রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক নির্মাণের ঠিকাদারি নিয়ে যারা প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে না তাদের কোন ক্ষমা নাই। এসব ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও এর কর্ণধারদের কালো তালিকাভুক্ত করে জনগণের সম্মুখে প্রকাশ করা হবে। যাতে তারা ভবিষ্যতে রাষ্ট্রীয় কোন গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পের কাজ না পায়। তিনি আজ শনিবার (২৩ জানুয়ারি) বিকালে চট্টগ্রাম নগরীর লাইফলাইন খ্যাত পোর্ট কানেকটিং (পিসি) রোড এর কলকা সিএনজি এলাকায় রোড ও বক্স কালভার্টের চলমান উন্নয়ন কাজের পরিদর্শনে গিয়ে এ কথা বলেন। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর ১৫ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষে কোরোনা টেস্টে নেগেটিভ রিপোর্ট আসার পর প্রশাসক আজ বন্ধের দিনেও কাজে নেমে পড়েছেন। পরিদর্শনকালে প্রশাসকের একান্ত সচিব মুহাম্মদ আবুল হাশেম, চসিকের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু সাদাত মোহাম্মদ তৈয়ব, আশিকুল ইসলামসহ অন্যান্য প্রকৌশলীগণ উপস্থিত ছিলেন।
পরিদর্শনকালে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন আরো বলেন, দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে জনগুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটির কাজ শেষ করতে নানাভাবে চেষ্টা করেছি। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে সড়কটির গুরুত্বতা অনুধাবন করে দ্রুততার সাথে জনদুর্ভোগ লাঘব করে কাজ শেষ করার তাগিদ দিয়েছি। এরপরও কয়েকটি প্রতিষ্ঠান কোনকিছুই কর্ণপাত করেনি। এভাবে রাষ্ট্রীয় কাজ নিয়ে গাফেলতি করাতো অপরাধ। পিসি রোডের দুরবস্থার বিষয়ে সরকারের উচ্চ পর্যায়েও অবহিত। তাই চেষ্টা করা হয়েছিলো সড়কটির কাজ সম্পূর্ণ শেষ করার। এর কাজ শেষ হলে এই অঞ্চলে বসবাসরত মানুষ ও চট্টগ্রাম বন্দর কেন্দ্রিক ভারি যানবাহন, ট্যাংক লরি, কন্টেইনারবাহী গাড়িগুলো নির্বিগ্নে চলাচল করতে পারতো। প্রশাসক পরিদর্শনকালে সড়কের পাশে নির্মিয়মান নালা ও সড়কের উপর অবৈধ স্থাপনা দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং তা আজ (শনিবার) রাতের মধ্যে সরিয়ে নিতে বলেন, না হলে পরদিন কর্পোরেশন ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানাসহ তা উচ্ছেদ বা উঠিয়ে নিবে বলে অভিযুক্ত দখলদার ব্যবসায়ীদের জানিয়ে দেন। এসময় তিনি বলেন সরকার কোটি কোটি টাকা ব্যয় করে রাস্তা ঘাট নির্মাণ ও উন্নয়ন কাজ করে। আর তা মুষ্টিমেয় দখলদার দখলে নিবে তা হতে দিবনা। প্রশাসক নগরবাসীকে দখলদার ও জুলুমদারদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান।
এর পূর্বে তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ টিমের আসন্ন চট্টগ্রাম সফর উপলক্ষ্যে আন্তজার্তিক ক্রিকেট ভেন্যু জহুর আহম্মদ চৌধুরী আন্তজার্তিক স্টেডিয়াম পরিদর্শন করেন। প্রশাসক স্টেডিয়ামের সার্বিক সৌন্দর্য ও পরিস্কার পরিচ্ছন্নতায় চসিকের নগর পরিকল্পনা শাখা ও পরিচ্ছন্ন বিভাগকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার নির্দেশনা প্রদান করেন।

 


ট্যাগ :

আরো সংবাদ