বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১ ১লা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Bangladesh Total News

উৎকোচ না নিয়ে ডিসিপ্লিনলী চলুন: সিবিএ নেতাদের উদ্দেশে প্রশাসক সুজন

প্রকাশের সময় : ২২ ডিসেম্বর, ২০২০ ৪:৪৫ : অপরাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক আলহাজ্ব মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন বলেছেন, মানুষকে জন্মগ্রহন করলে মরতে হয়, এটা স্বাভাবিক। কিন্তু জীবদ্দশায় কর্মগুণে মানুষ তাঁর মৃত্যুর পরেও স্মরণীয় হয়ে থাকেন। তেমনি কর্পোরেশনের শ্রমিক কর্মচাারী লীগ (সিবিএ) এর সাবেক সভাপতি জালাল উদ্দিন আহাম্মদ ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল খালেক তাদের কর্মগুণে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কাছে এখনও স্মরণীয় হয়ে আছেন । প্রয়াত এই দুই নেতা মহিউদ্দিন চৌধুরীর পূর্বেকার সময়ের মেয়রদের কাছে চসিকের শ্রমিক কর্মচারীদের সুবিধা-অসুবিধা দাবি দাওয়া নিয়ে আন্দোলন সংগ্রাম করতে গিয়ে বহুবার অপদস্ত হয়েছেন। তারপরও তারা কোন ধরনের আপোষ ও অসৎ পথে পরিচালিত হননি। এটাই নেতৃত্বের বড় গুণ। তিনি আজ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন শ্রমিক কর্মচারী লীগ (সিবিএ)-৬৮৩ আয়োজিত সিবিএর প্রয়াত সাবেক সভাপতি জালাল উদ্দিন আহাম্মদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল খালেক, সাবেক ক্রীড়া সম্পাদক প্রিয়তোষ চক্রবর্ত্তী (সাপ্পি),সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক চিরিঙ্গী লালের স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মুহাম্মদ মোজাম্মেল হক, প্রধান প্রকৌশলী লে.কর্নেল সোহেল আহম্মেদ, চসিক সিবিএর সাবেক সভাপতি দোস্ত মোহাম্মদ ও সাধারণ সম্পাদক মোরশেদুল আলম চৌধুরী। সভাপতি ফরিদ উদ্দিন আহম্মদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমানের সঞ্চালনায় এতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাবেক সহ-সভাপতি জাহেদুল আলম চৌধুরী, রূপন কান্তি দাশ, ইয়াছিন চৌধুরী,সাংগঠনিক সম্পাদক বিপ্লব কুমার চৌধুরী, আবুল মাসুদ, অর্থ সম্পাদক তারেক সুলতান, যুগ্ম সম্পাদক রতন দত্ত, আইন সম্পাদক ফরিদ আহাম্মেদ, দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ মোস্তফা,ক্রীড়া সম্পাদক কল্লোল দাশসহ প্রচার সম্পাদক রতন চৌধুরী, মেজবাহ উদ্দিন আহাম্মদ, অ্যাডভোকেট কৃষ্ণ দাশ,রিফাত নাঈম আহম্মেদ। এতে উপস্থিত ছিলেন জব্বার মোহাম্মদ রফিক, শফিকুল ইসলাম, হারুনুর রশিদ, পুলক দে এলান মুন্সি, যোগেশ দাশ, দীলিপ দাশ, দিলাবর দাশ, কৃষ্ণ দাশ।প্রধান অতিথির বক্তব্যে খোরশেদ আলম সুজন আরো বলেন,চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন বর্তমানে আর্থিক সংকটের মধ্য দিয়ে দিন পার করছে। তিনি বলেন কর্পোরেশনের কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্তরিক ও সৎভাবে নিজ দায়িত্ব পালন করা উচিত। চট্টগ্রাম নগরীকে পরিচ্ছন্ন ও পরিবেশবান্ধব রাখতে চসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ভূমিকায় মুখ্য। তিনি কর্পোরেশনের টাকা অপ্রয়োজনীয় খাতে ব্যয় না করার আহ্বান জাানিয়ে বলেন, মনে রাখবেন যে টাকা অপব্যয় করবেন তা জনগণের করের টাকা। কাজেই চাকরিজীবনে কারো ওপর জুলুম ও উৎকোচ গ্রহণ না করে নিয়মানুবর্তিতার মাধ্যমে চলবেন এটাই আমার প্রত্যাশা। তাহলেই জীবন সুন্দর ও স্বার্থক হবে। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মুহাম্মদ মোজাম্মেল হক বলেন, মানুষের জীবন ও চাকরিজীবন দুটোই ক্ষণস্থায়ী। সাধারণভাবে পড়াশোনা শেষ করে ২৭ বছরে যেকোন মানুষ কর্মজীবনে প্রবেশ করে সর্বোচ্চ ৩০ বছর চাকরি করতে পারেন। গড় আয়ু হিসেব করলে চাকরির সূত্রে মানুষের সেবা করার সুযোগ পাওয়া যায় প্রায় ১৫ বছর। কাজেই সততা ও সুনামের সাথে চাকরি করতে পারাটা একজন চাকরিজীবীর উল্লেখযোগ্য দিক। তিনি বলেন, সিবিএর কাজ হচ্ছে প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সাথে শ্রমিক কর্মচারীদের দাবি-দাওয়া সুবিধা অসুবিধা নিয়ে সেতুবন্ধন তৈরি করা । আর একাজ করতে হয় সরকারি বিধিবিধান মেনে। আশাকরি কর্পোশেনের শ্রমিক কর্মচারী (সিবিএ) নেতৃবৃন্দ বিষয়গুলো মেনে চলবেন।সভায় চসিক সিবিএর নেতৃবৃন্দ অস্থায়ী কর্মচারীদের বেতনবৃদ্ধির বিষয়ে কর্পোরেশনের প্রশাসনের আন্তরিক সহযোগীতা কামনা করেন।

 


ট্যাগ :

আরো সংবাদ